বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা অধিনায়কের বীরত্বগাঁথা

ওয়ানডে, টেস্ট আর টি২০’র ১৬ বছরে দুই হাটুতে সাতবার অপারেশন। সম্পূর্ণ ক্যারিয়ারে দশ বার ডাক্তারের ছুরির নিচে নিজেকে সঁপে দেয়া। প্রতি ম্যাচ শেষে সিরিজ দিয়ে টেনে বের করতে হয় হাটুতে জমা বিষাক্ত রস। ঘুম থেকে সঙ্গে সঙ্গে নামতে পারেন না বিছানা থেকে। হাটু দু’টোকে কয়েকবার ভাঁজ করতে হয়, সোজা করতে হয়, তারপর শুরু হয় দিন। মাঝে মধ্যে রাত গুলো হয়ে উঠে আরো আতংকের। ঘুমের মধ্যে অনুভব করেন কোনো একটা পা বাঁকানো যাচ্ছে না।

ডাক্তাররা বলেছিলেন, এভাবে ক্রিকেট চালিয়ে গেলে পঙ্গু হয়ে যেতে পারেন, কিন্তু দমে যাননি। সব শংকা উড়িয়ে বল হাতে বাঘের মতো ছুটে চলা। এ যেন অপ্রতিরোধ্য এক বীর সেনানীর গল্প। যার জীবনের পরতে পরতে ছড়িয়ে আছে সাহসীকতা, দেশপ্রেম আর অদম্য এক যোদ্ধার প্রতিচ্ছবি। শত ঝড়ঝাপটা পেরিয়ে লাল সবুজ পতাকার সম্মান, হাসিকান্নার ভাড় তিনি দুই কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন । ম্যাচ হারলেও চোখের জল ফেলেন অনেকটা নিরবে। সবার আড়ালে। যাতে তরুণ ক্রিকেটাররা হতাশ না হন।

পায়ে ব্যান্ডেজ নিয়েও যিনি বল করে যান। দলকে নেতৃত্ব দেন সামনে থেকে। নিজের কষ্ট, ব্যথা নিজের মধ্যেই রেখে দেশের জন্য লড়ে যান ক্রিকেট যুদ্ধে। সেই নায়কের কথা। না এমন মানুষকে শুধু নায়ক বলা তো অপরাধ। তার নামের পাশে মহানায়ক শব্দটাই বেশি মানান সই।

তিনি মাশরাফি বিন মর্তুজা (জন্ম: অক্টোবর ৫, ১৯৮৩; নড়াইল জেলা)। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম বোলিং স্তম্ভ ছিলেন ও একদিনের আন্তর্জাতিকে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। তার ডাক নাম ‘কৌশিক’। তিনি একজন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তার বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলার। বাংলাদেশ জাতীয় দল ছাড়াও তিনি এশিয়া একাদশের একদিনের আন্তর্জাতিক দলে খেলেছেন।

বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিমের জেলা নড়াইলএ মাশরাফির জন্ম। ছোটবেলা থেকেই তিনি বাঁধাধরা পড়াশোনার পরিবর্তে ফুটবল আর ব্যাডমিন্টন খেলতেই বেশি পছন্দ করতেন। আর মাঝে মধ্যে চিত্রা নদীতে সাঁতার কাটা। তারুণ্যের শুরুতে ক্রিকেটের প্রতি তার আগ্রহ জন্মে; বিশেষত ব্যাটিংয়ে। দিও এখন বোলার হিসেবেই তিনি বেশি খ্যাত, যার কারণে তাকে নড়াইল এক্সপ্রেসনামেও অভিহিত করা হয়।

২০০১ সালের ৮ নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে অভিষেক হয় মাশরাফির। একই বছর ২৩ নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই ওয়ানডে ক্রিকেটে জাতীয় দলে ঢোকেন তিনি। এই দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তিনি বেশ কয়েকবার ইনজুরির কারণে জাতীয় দলের মূল স্কোয়াড থেকে ছিটকে পড়েনপরে আবারও ফিরে আসেন।

মর্তুজা বাংলাদেশের সফলতম পেস বোলারদের একজন। আক্রমণাত্মক, গতিময় বোলিং দিয়ে অনূর্ধ১৯ দলে থাকতেই তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সাবেক ফাস্ট বোলার অ্যান্ডি রবার্টসের নজর কেড়েছিলেন। যিনি কিনা তখন দলটির অস্থায়ী বোলিং কোচের দায়িত্বে ছিলেন। রবার্টসের পরামর্শে মাশরাফিকে বাংলাদেশ এদলে নেয়া হয়।

মাশরাফি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ গতির বোলার এবং সমর্থকদের কাছে নড়াইল এক্সপ্রেসনামে পরিচিত। তবে কালে-ভদ্রে মাশরাফিকে একজন মারকুটে ব্যাটসম্যান হিসেবেও দেখা যায়। ভারতের বিপক্ষে ঢাকায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিক খেলায় তিনি পরপর চার বলে ছক্কা পেটান। সেই ওভার থেকে তিনি ২৬ রান সংগ্রহ করেন যা কোন বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানের জন্য এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।

১৬ বছরের ক্যারিয়ারে ১১ বার চোটের কারণে দলের বাইরে যেতে হয়েছে মাশরাফিকে। চোটই তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছিল ২০১১ সালের দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ। ২০১৬ সালের রকেট বাংলাদেশইংল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় খেলায় ২ উইকেট সংগ্রহের মাধ্যমে মোট ২১৬ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারী হিসাবে অনন্য উচ্চতায় আসীন করেছেন নিজেকে।

২০১৭ সালে ৬ই এপ্রিল বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকা সিরিজের শেষ টি২০ দিয়ে উনি আন্তর্জাতিক টি২০ খেলা থেকে অবসর নেন। মাঠে ম্যাশ নামে পরিচিত মাশরাফি বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার যে অধিনায়ক থাকা অবস্থায় অবসর নিয়েছেন।

টি২০ ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেট সংগ্রহ করেন বঙ্গবন্ধু টিটোয়েন্টি কাপ ২০২০তে জেমকন খুলনার হয়ে।

২০০৯ সালের শুরুতে মাশরাফী অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলের সহকারী ছিলেন। পরবর্তীতে ওই বছরেরই জুন মাসে তিনি মোহাম্মদ আশরাফুলের স্থলাভিষিক্ত হন এবং তার সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পান সাকিব আল হাসান।

কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে নিজের প্রথম ম্যাচেই তিনি হাঁটুতে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন। ঐ খেলায় বাংলাদেশ জয়লাভ করে কিন্তু মাশরাফী এই চোটের কারণে ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মাঠের বাইরে ছিলেন। উক্ত ম্যাচসহ পরবর্তীকালে বাংলাদেশের অধিনায়কত্ব করেন সাকিব আল হাসান।

পরবর্তীতে ২০১৪ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের সাথে হোম সিরিজে তিনি পুনরায় অধিনায়কত্ব পান। তবে এ বার তিনি শুধু একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য দায়িত্ব পান এবং এবারও তার সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পান সাকিব আল হাসান।

২০১৫ সালের বিশ্বকাপেও তিনি বাংলাদেশের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০২০ সালের ৬ মার্চ সফররত জিম্বাবুয়ের সাথে তৃতীয় ওডিআই ম্যাচের পর ওডিআই দলের অধিনায়ক পদ থেকে সরে যান। শেষ ওডিআইয়ে জয় নিয়ে অধিনায়কত্ব ছাড়লেও খেলা চালিয়ে যাবেন এমনটা তিনি নিশ্চিত করেন ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে। সতীর্থদের ভালবাসায় সিক্ত ৩৬ বছর বয়সী এই দল নেতা ৮৮টি ওয়ানডে খেলায় নেতৃত্ব দিয়ে ৫০টিতে জয় লাভ করেছেন।

মাশরাফি বিন মতুর্জা নড়াইলের সব মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য। তিনি এলাকার মানুষের পাশে সব সময় ছিলেন। সর্বশেষ বিপিএল’র আসরে চ্যাম্পিয়ান দল রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক হিসাবে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ ইকবাল সোবহান ৫ কোটি টাকা বোনাস দিয়েছিলেন একটি দামি গাড়ি কেনার জন্য। কিন্তু মাশরাফি রেঞ্জ রোভারের মতো বিলাসবহুল গাড়ি না কিনে এলাকার মানুষের জন্য একটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এ্যাম্বুলেন্স কিনে দিয়েছেন। এছাড়াও নানা সময় তিনি নড়াইলের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

প্রাসঙ্গিক লেখা সমূহ-

  • ব্যালন ডি’অর এর ইতিহাস
    বর্তমান ফুটবলে সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ ব্যক্তিগত পুরষ্কারের নাম বললে প্রথমেই যেসব পুরষ্কারের নাম মাথায় আসবে সেগুলো হচ্ছে- ব্যালন ডি’অর, ফিফা দ্যা বেস্ট ও উয়েফা বেস্ট। তবে এদের মধ্যে সেরা কোনটা তা নির্ধারণে বোধহয় বেশি আলোচনা হবে ফিফা দ্যা বেস্ট ও ব্যালন ডি’অর নিয়ে। কারন দ্যা বেস্ট এর বিজয়ী নির্ধারণ করে ফিফা। তবে, তা স্বত্বেও ব্যালন ডি’অর … Read more
  • এই প্রজন্মের সেরা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি
    বর্তমান বিশ্বের সেরা ফুটবলার কে? কেউ বলবে মেসি কেউবা রোনালদো! কিন্তু যদি প্রশ্ন টা হয় ক্রিকেটে, কে বিশ্বসেরা? তাতে মনে হয়না খুব একটা দ্বিমত আসবে বিরাট কোহলির নাম নিয়ে। আচরণের জন্য তাকে অনেকে পছন্দ না করলেও ক্রিকেটার হিসেবে তিনি যে সেরা তাতে কারোরই সন্দেহ থাকার কথা নয়, উচিত নয়।
  • ক্রিকেট খেলার অতীত ও বর্তমান
    যতদূর জানা যায়, ক্রিকেট খেলাটির যাত্রা ১৫৯৮ সালে শুরু হয়েছিল বলে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল এবং সেটি অনুসারে ১৫৫০ সালের দিকেও খেলাটি প্রচলিত ছিল। কিন্তু ক্রিকেটের আসল উৎপত্তি কবে, কোথায় হয়েছিল, তা এখনও এক রহস্য। তবে বেশিরভাগ মতই বলছে ক্রিকেটের জন্ম হয় ইংল্যান্ডে। মোটামুটি দৃঢ়ভাবেই বলা যায় যে, ১৫৫০ সালের আগেও দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডের কেন্ট, সাসেক্স … Read more

Leave a Comment