ইংরেজি শেখার ৬টি সেরা অ্যাপস

ইংরেজি একটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃত ভাষা হওয়ায়, সকল দেশ ও ভাষাভাষীদের জন্য এটি সমান গুরুত্বপূর্ণ। উঠতে বসতে সবখানেই ইংরেজির ব্যবহার অহড়হ দেখা যায়। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায়ও প্রথম শ্রেণি থেকে শুরু করে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ইংরেজি ভাষাটিকে সবার জন্য বাধ্যতামূলক রাখা হয়েছে।

এছাড়াও উচ্চশিক্ষা, উচ্চপদস্থ চাকরি ও বিদেশ ভ্রমণেও ইংরেজি জানা বাধ্যতামূলক। তাই এর গুরুত্ব সম্পর্কে সবাই আমরা কম বেশি জানি।

তবে আমাদের দেশের অধিকাংশ ছেলেমেয়েদের মধ্যে ইংরেজি নিয়ে ভীতি কাজ করে। যার ফলে তাদের এই বিষয়টিতে পারদর্শী হওয়া আর হয়ে ওঠে না। তবে স্বস্তির বিষয় হচ্ছে ইংরেজি শেখার জন্য এখন আর হারিকেন দিয়ে দক্ষ ইংলিশ টিচার খুজতে হবে না বা টিউটরের পেছনে হাজার হাজার টাকা খরচ করতে হবে না। সমাধান মিলবে হাতের কাছে থাকা স্মার্টফোনটিতে।

রেনডম ক্যাট ভিডিও দেখে ও সোশাল সাইট স্ক্রোলিং এ সময় নষ্ট না করে ১০-২০ মিনিট কিছু অ্যাপস ব্যাবহারের মাধ্যমেও ইংলিশে আপনি দক্ষ হয়ে উঠতে পারবেন।

প্লে স্টোর ও অ্যাপ স্টোরে হাজারটা ইংরেজি শেখার অ্যাপস রয়েছে। তবে সব মানসম্মত ও দরকারী না। সব অ্যাপস ডাউনলোড করে, সাইন আপ করে, ট্রাই করে দেখার মতো ধৈর্য বা সময়ও কারো নেই।

তাই আপনাদের সুবিধার্থে অসংখ্য অ্যাপসগুলোর মধ্য থেকে বাছাই করে ইংরেজি শেখার সেরা ৬টি অ্যাপস নিয়ে এসেছি যেগুলো ব্যবহারে ইংরেজির প্রতি ভয় কেটে যাবে এবং খুব সহজেই এই ভাষাটিকে আয়ত্তে আনা যাবে।

প্রাথমিক বা মাধ্যমিক; আপনার অবস্থা যাইহোক না কেনো এই অ্যাপসগুলো নিয়মিত ব্যবহারে ইংরেজিতে আপনি দক্ষ হয়ে ওঠতে পারবেন।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক-

ইংরেজি শেখার সেরা ৬টি অ্যাপ সম্পর্কে


০১। Duolingo App

ভাষা শিক্ষায় সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপসগুলোর নাম বলতে গেলে সবার প্রথমে ডুয়োলিঙ্গ অ্যাপের নাম আসবে । এই অ্যাপটির বিশেষত্ব হলো এটি গেমসের সাহায্যে ভাষা শিক্ষা দিয়ে থাকে। অ্যাপটিতে ভোকাবুলারি, গ্র্যামার, লিসেনিং, স্পিকিং সবকিছু শেখার সুবিধা আছে।

এই অ্যাপটি ব্যবহারকারীর প্রতিটি প্রোগ্রেস ট্র্যাক করে এবং মোটিভেশন ধরে রাখার জন্য বিভিন্ন রিওয়ার্ড দিয়ে থাকে। অ্যাপটি প্রাইমারী, ইন্টারমিডিয়েট, এডভান্সড প্রতিটি লেভেলের মানুষের জন্যই সমান উপযোগী।

নিজের ধাপ জানার জন্য টেস্টের ব্যবস্থাও আছে। টেস্ট সম্পন্ন করলে এটি আপনাকে আপনার লেভেল বলে দিবে। অ্যাপটিতে ফ্রি ও পেইড দুটি ভারসনই আছে।

পেইড ভারসন থেকে ফ্রি ভারসনে খুব বেশি পার্থক্য নেই। ফ্রি ভারসনে মাঝে মাঝে কিছু এড আসবে। সেটা এডজাস্ট করতে পারলেই ফ্রী’তে ৪৩টির মতো ভাষা শেখা যাবে ডুয়োলিঙ্গ অ্যাপটি থেকে; যার মধ্যে ইংরেজি অন্যতম।

০২। Hello English App

ইংরেজি শেখার আরেকটি জনপ্রিয় অ্যাপ হলো হ্যালো ইংলিশ। বিগিনারদের জন্য এই অ্যাপটি খুবই ইফেক্টিভ । এখানেও টেস্টের মাধ্যমে নিজের লেভেল যাচাই করার সুযোগ রয়েছে। টেস্ট দেওয়ার পর অ্যাপটি ব্যবহারকারীর লেভেল বুঝে লেসন সাজিয়ে থাকে।

অ্যাপটিতে প্রতিটি লেসনের বাংলা ব্যাখ্যা আছে। সাথে আছে লেসন শেষে টেস্টের মাধ্যমে নিজেকে যাচাই করার সুযোগ। এতে রেকর্ডেড ক্লাসের পাশাপাশি লাইভ ক্লাস করার ব্যবস্থাও রয়েছে। অ্যাপটিতে ইংলিশের বিভিন্ন টপিকের সমন্বয়ে পছন্দ মতো পার্টনারের সাথে গেইম খেলার ব্যবস্থাও রয়েছে।

অসংখ্য অডিও, ভিডিও, ভোকাবুলারি গেইম, আর্টিকেলস,কনভারসেশন প্রাকটিস, নিউজ ও কিছু ইবুক দিয়ে অ্যাপটি সাজানো হয়েছে; যাতে ব্যবহারকারীরা নিজেদের পছন্দের টপিকে ইংলিশ শিখতে পারে। যারা বিগিনার ও ইন্টারমিডিয়েট পর্যায়ে আছেন তারা এই অ্যাপটি ব্যবহার করে নিজের লেভেল আপগ্রেড করতে পারবেন।

০৩। English Vocabulary App

যেকোনো ভাষা শেখার পূর্বশর্ত হলো ঐ ভাষার পর্যাপ্ত শব্দার্থ বা ভোকাবুলারি জানা। ঠিক তেমনটি ইংরেজির বেলায়ও প্রযোজ্য। পর্যাপ্ত ভোকাবুলারি ছাড়া আপনি কখনোই ইংলিশ স্পিকিং ও রাইটিং এ ভালো করতে পারবেন না।

যাদের কাছে ইংরেজি অনেক কঠিন লাগে বা যারা বিগিনার লেভেলে আছেন তাদের উচিত সবার আগে ইংলিশ ভোকাবুলারিতে মনোযোগ দেওয়া।

ভোকাবুলারি কথা বললে, অনেকের মোটা মোটা ডিকশনারির কথা মাথায় আসে যা ভিষণ বোরিং ও মনে রাখার ক্ষেত্রে কম ইফেক্টিভ । তাই সহজে ভোকাবুলারি রপ্ত করার জন্য ইংলিশ ভোকাবুলারি অ্যাপটি এই লিস্টে রাখা হয়েছে।

এই অ্যাপটি নিত্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ইংলিশ ভোকাবুলারির সাথে ছবি যুক্ত করে সাজানো হয়েছে। সাথে বাংলা অর্থও আছে, যা কিছুটা মজার ও মনে রাখতে খুবই সহায়ক। এই অ্যাপটি বিগিনারদের জন্য খুবই সহায়ক হবে।

০৪। Learn English- 11,000 Words App

লার্ন ইংলিশ ১১,০০০ ওয়ার্ডসও ইংলিশ ভোকাবু্লারি ও সেন্টেন্স শেখার আরো একটি অ্যাপ। যারা ইংলিশের কিছুই জানেন না তাদের জন্য এই অ্যাপটি।

এই অ্যাপটি থেকে বেসিক ইংলিশ ভোকাবুলারি থেকে শুরু করে দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত সকল ইংরেজি বাক্য অনায়াসেই শেখা যাবে। অ্যাপটির বিশেষত্ব হচ্ছে এখানে আকর্ষনীয় কার্টুন, পিকচারের মাধ্যমে শব্দার্থ ও বাক্য শেখানো হয়; কিছুটা গ্যামিফাইড পদ্ধতি অনুসরণ করে।

এখানে প্রতিটি শব্দার্থ ও বাক্যের প্রোনাউন্সেশন ও বাংলা অর্থও দেওয়া থাকে। তাই ইংলিশ শিখতে এই অ্যাপটি বাচ্চা থেকে বুড়ো সবার জন্যই সমান ইফেক্টিভ।

নিজের অবস্থান বোঝার জন্য এখানে টেস্টের ব্যবস্থা আছে। টেস্ট দিয়ে নিজের লেভেল অনুযায়ী শেখা শুরু করতে পারেন। অ্যাপটিতে ফ্রী ও প্রিমিয়াম ভারসন রাখা হয়েছে।

ফ্রী ভারসনে অল্প কিছু কোর্স রাখা হয়েছে। বাকি সব কোর্সের একসেস প্রিমিয়াম ভারসনে রয়েছে। প্রিমিয়াম ভারসনে গেলে অ্যাপটি অফলাইনেও ব্যবহার করা যাবে। প্রিমিয়াম ভারসনের জন্য প্রতিমাসে ৩০২ টাকা ব্যয় করতে হবে।

০৫। BBC Learning English App

আরো একটি অসাধারন ইংলিশ শেখার অ্যাপ হলো বিবিসি লার্নিং ইংলিশ অ্যাপ। এটি সম্পূর্ণ ফ্রী একটি অ্যাপ। সাথে বিজ্ঞাপনমুক্তও। যাদের ইংলিশ ইন্টারমিডিয়েট পর্যায়ে, তারা এই অ্যাপটি ব্যবহার করে খুব সহজেই এডভান্স লেভেলে যেতে পারবেন।

অ্যাপটিতে ২-৫ মিনিটের শর্ট ভিডিওর মাধ্যমে গ্র্যামার শেখানো হয়। সাথে রয়েছে সেই টপিকে কুইজ দিয়ে নিজেকে ঝালাই করার ব্যবস্থাও। কমিউনিকেটিভ ইংলিশ শেখার জন্য অ্যাপটিতে রয়েছে প্রাত্যহিক, বিজনেস, নিউজ ও ড্রামার মাধ্যমে ইংলিশ শেখার সেকশন।

ল্যাঙ্গুয়েজ স্কিলের জন্য রয়েছে প্রোনাউন্সেশন, গ্র্যামার , ও ভোকাবুলারি সেকশন। অ্যাপটির প্রতিটি ভিডিও ও অডিও ক্লিপ খুবই শর্ট টাইমের এতে করে অল্প সময় ব্যয় করেও আপনার ইংলিশের লেভেল আপগ্রেড করতে পারবেন খুব সহজেই। অ্যাপটি ইন্টারমিডিয়েট ও এডভান্স লার্নারদের জন্য হাইলি রিকমান্ডেড ।

০৬। Hello Talk App

ইংলিশ এ দক্ষ হওয়ার ৪টি চাবিকাঠি হলো লিসেনিং, স্পিকিং, রিডিং ও রাইটিং। ইংলিশ শেখার মূখ্য উদ্দেশ্যই হলো অন্যদের সাথে ইংলিশে কমিউনিকেট করা। অনেকে রিডিং ও রাইটিং এ ভালো হলেও স্পিকিং এ ইতস্তবোধ করেন বা নেটিভ স্পীকারদের দ্রুত ইংলিশ বুঝতে পারেন না অর্থাৎ লিসেনিং এ সমস্যা।

হ্যালো টক অ্যাপ ইংলিশ লিসেনিং ও স্পিকিং প্রাকটিসের জন্য অসাধারন একটি অ্যাপ । এখানে অসংখ্য নেটিভ ইংলিশ স্পিকার রয়েছে যারা খুবই বন্ধুসুলভ তাদের সাথে আপনি ইংলিশ প্র্যাকটিস করে স্পিকিং এ দক্ষ হতে পারবেন।

অ্যাপটিতে প্রতিদিন নেটিভ ইংলিশ স্পিকাররা লাইভের ব্যবস্থা করে থাকেন । সেখানে প্রশ্ন করে আপনার বিভিন্ন ডাউট ক্লিয়ার করে নিতে পারবেন তাদের থেকে।

এছাড়াও স্পিকিং এ দক্ষ হওয়ার জন্য বিভিন্ন দেশের মানুষরা ভয়েসরুমের ব্যবস্থা করে করে থাকেন। সেখানে জয়েন করে ইংলিশ স্পিকিং এর ভীতি কাটিয়ে উঠতে পারেন। অ্যাপটিতে পছন্দের মানুষদের ফলো করে তাদের সাথে চ্যাটিং ও কলে কথা বলার ব্যবস্থাও আছে।

আরও পড়ুন-